Spread the love
image_pdfimage_print

মাসুম আল ইসলাম, ভাঙ্গা (ফরদিপুর) প্রতনিধিঃি- ফরদিপুররে ভাঙ্গায় ৬নং ওর্য়াড কাউন্সলির শখে সয়ৈদ আলীর ব্যবহৃত এন্ড্রয়ডে মোবাইল ফোনটি হারয়িে যায়। অতঃপর সততার পরচিয় দনে ভ্যান চালক ইদ্রসি।
শনবিার সকালে ব্যক্তগিত প্রয়োজনে ভ্যানযোগে চলাচল করার পরে হ্যান্ডসটেটি  হারয়িে যায়, পরে বষিয়টি স্থানীয় সাংবাদকি মোঃ শাকলি আহমাদকে অবগত করনে কাউন্সলির। এরপরে সাংবাদকি ঐ হ্যান্ডসটেটরি নম্বরে যোগাযোগ করে জানতে পারনে, ভ্যান চালক তার মটর চালতি ভ্যানরে বডতিে পরে থাকা মুঠোফোনটরি মালকিকইে খুজছনে। র্বতমান সময়রে সততা দখোনোর মানুষটরি সাথে মুখোমুখি সাক্ষাতরে জন্য সাংবাদকি নজিইে ভ্যান চালককে সঙ্গে নয়িে তার অফসিে যান। এরপরে কাউন্সলির অফসিে গলেে ভ্যান চালকরে সততায় মুগ্ধ হয়ে তাকে জড়য়িে ধরনে। তাদরে কথোপকথোনরে এক র্পযায়ে জানতে পারনে, উপজলোর হামরিদী ইউনয়িনরে রাজকান্দা গ্রামরে মৃত আব্দুল মজদি সরদাররে পুত্র মোঃ ইদ্রসি সরদার (৩৫), র্কমজীবনে তনিি ভ্যান চালয়িে জীবকিা র্অজন করনে। সাংবাদকিরে এক প্রশ্নরে জবাবে তনিি বলনে,”বগিত দনিওে কয়কেবার টাহা (টাকা) পয়শা পাইছি (পয়েছে)ি, আবার জাগো (যাদরে) টাহা (টাকা) তাগো (তাদরে) দছিি (দয়িছে)ি, কোডি (কোট)ি টাহাও (টাকা) যদি পাইয়া থাহি (পয়েে  থাক)ি হইেয়্যা ফরেত দবেো (দবি) এই টাহা (টাকা) নয়িা (নয়ি)ে কুনো (কোন) লাভ নাই (নইে)”
ভ্যান চালকরে কথাগুলো শুনে মনে পড়ে যায় সইে মূল্যবান উক্তটিি “সততাই র্সবত্তম পন্থা।” সমাজরে সকলইে যদি ভ্যান চালকরে মত সততা নয়িে বসবাস করতনে তাহল,ে মহান উক্তটিরি মূল্যায়ন নশ্চিয়ই অবমূল্যায়তি হত না।
জন্ম হোক যথাতথা র্কম হোক ভালো তাই আসুন ভ্যান চালক ইদ্রসিরে মত সৎ পন্থা হৃদয়ে ধারণ করে অসৎ পন্থা ত্যাগ করে সুন্দর সমাজ গড়ে তুল।ি